চাল আত্মসাতের মামলায় জামিন পাননি শরীয়তপুরের আরশিনগরের চেয়ারম্যান

বিশেষ প্রতিবেদনঃ

জেলেদের ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগের মামলায় হাইকোর্টে জামিন পাননি শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার আরশিনগরের চেয়ারম্যান সামসুদ্দোজা রতন।

তবে সোমবার (১৫ জুন) ওই ইউনিয়নের সচিবকে জামিন দিয়েছেন বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদারের ভার্চ্যুয়াল বেঞ্চ।

দু’জনের জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী নাসরিন ফেরদৌস। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী শামসুন নাহার কনা। দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী শাহীন আহমেদ।

আদালতের আদেশের বিষয়টি নিশ্চিত করে আমিন উদ্দিন মানিক জানান, শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানার আরশিনগর ইউনিয়নের জেলেদের ভিজিএফের ৩৫ বস্তা চাল আত্মসাতের অভিযোগে চেয়ারম্যান সামসুদ্দোহা রতন এবং ওই ইউনিয়ন পরিষদের সচিব জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে দুদক মামলা দায়ের করে।

ফরিদপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক মো. আবু সাঈদ বাদী হয়ে এ মামলা করেন। মামলার এজাহারে বলা হয়, চেয়ারম্যান ও সচিব পরস্পর যোগসাজশে অনিয়ম ও প্রতারণার আশ্রয় গ্রহণ করে ইউনিয়নের উপকারভোগী কার্ডধারী মৎস্যজীবীদের মধ্যে ভিজিএফ’র চাল বিতরণে অনিয়ম করে ৩৫ বস্তা চাল (এক হাজার পঞ্চাশ) কেজি চাউল যার মূল্য অনুমান পঁয়তাল্লিশ হাজার একশ পঞ্চাশ টাকা আত্মসাৎ করে।

তিনি আরও জানান,গত ৭ মে বিকেল ৫টার দিকে উপজেলার আরশিনগর ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ৩৫ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়। এসময় ওই ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও সচিবকে আটক করে পুলিশ।